নিতেশ্বর গ্রামে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসী হামলায় মা মেয়েসহ আহত ৪

জুলাই ০১ ২০১৮, ১৭:১৯

নিজস্ব প্রতিনিধি ঃ মৌলভীবাজার ১২নং গিয়াসনগর ইউপি নিতেশ্বর গ্রামে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসী হামলায় সেলিনা বেগম (২্৪). হাসিনা বেগম (৬৭), টুম্ম্পা আক্তার (২২), তাছলিমা বেগম (৩০) গুরুতর আহত হয়েছেন গত ২৯ জুন বিকালে। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত গুরুতর আহত সেলিনা বেগম ও তার মা হাসিনা বেগম মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় হোসনে আরা আক্তার বাদী হয়ে একই এলাকার দুলাল মিয়ার পুত্র রুবেল মিয়া (২৪), মৃতঃ ইউছুব মিয়ার পুত্র সোহেল আহমদ (২৮), আনিছ মিয়ার পুত্র আফজাল মিয়া (১৮), কাওছার মিয়া (২০), আনিছ মিয়া (৪৮), মজমিল মিয়ার পুত্র খালেদ মিয়া (২৫) ও জবেদ মিয়া (২৮)কে আসামী করে মৌলভীবাজার মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। আজ ৩০ জুন দুপুরে মডেল থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনার বিবরনে জানা যায়- গত ২৯ জুন বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে গুরুতর আহত সেলিনা বেগম এর শিশু পুত্র সোহাগ (১০) মীর বাড়ীর পুকুরে গোসল করতে গেলে সোহেল আহমদ তাকে গালিগালাজ করতে থাকেন। এ সময় তিনি প্রতিবাদ করলে সোহেল আহমদগংরা তাদের হাতে থাকা লাঠি, কাঠের বর্গা ও লোহার রড দিয়া এলোপাথারী ভাবে কিল, ঘুষি মেরে শরীরের বিভিন্ন স্থানে নিলাফুলা জখম করে শ্লীলতাহানি ও গুরুতর জখম করে তাদের সাথে থাকা স্বর্নের চেইন চিনিয়ে নিয়ে যায়। এ সময় স্থানীয় এলাকাবাসী গুরুতর আহতদের উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। মৌলভীবাজার মডেল থানার এস আই ওলিউর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান- পরিবাররটিকে নির্মম ভাবে নির্যাতন করা হয়েছে। পৃর্বেও ঐ পরিবারটিকে নির্যাতন ও হয়রানী করা হয়েছে বলে স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে। দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

  •