শ্রীমঙ্গল উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন

জুলাই ৩১ ২০১৮, ১৮:৩৪

ঝলক দত্ত : শ্রীমঙ্গল উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির ত্রিবার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (৩০ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে একটানা বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ঝলক ও মনসুর পরিষদ জয় লাভ করে। সভাপতি, সিনিয়র সভাপতি ও সহ সভাপতি, সম্পাদকসহ ২৭টি পদের মধ্যে ২২ টি পদে জয়লাভ করে ঝলক ও মনসুর পরিষদ। ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সভাপতি পদে ভূনবীর দশরত স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক ঝলক কান্তি চক্রবর্তী ১৮৯ ভোট পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি ছিলেন কাকিয়া বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নোমান আহমেদ সিদ্দিকী। তিনি পেয়েছেন ১৪৩ ভোট। সিনিয়র সহ সভাপতি পদে ধোবার হাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কৃপেশ চন্দ্র দেব ১৯৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন, অপর সিনিয়র সভাপতি পদে আব্দুল ওয়াব উচ্চ বিদ্যালয়ের খালেদ আব্দুল বাছিত ১৭০ ভোট ২য় সিনিয়র সহ সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। সহ সভাপতি পদে ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহমান ১৯২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন এবং রানার উচ্চ বিদ্যালয়ের সহ প্রধান শিক্ষক নুরুল হক ১৫৩ ভোট পেয়ে ২য় সহ সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। সাধারণ সম্পাদক পদে ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক মোঃ মনসুর ইকবাল ১৮৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি ছিলেন ধোবার হাট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক বিপ্লব কান্তি দাশ। তিনি পেয়েছেন ১৪৮টি ভোট। যুগ্ন সম্পাদক পদে মোঃ আব্দুল বাছিত ১৮৫ ও সুমন সরকার ১৮০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। কোষাধ্যক্ষ পদে মোঃ আখতার হোসেন ১৮০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মোঃ আফজল মিয়া ১৬৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। সহ সাংগঠনিক পদে জেসমিন আক্তার ১৭৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। সমাজকল্যাণ সম্পাদক পদে রনঞ্জিত কুমার পাল ১৮৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক করুনাময় দাশ ১৯৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক দেবতোষ দাশ ২০৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। দপ্তর সম্পাদক পদে শাহিনা আক্তার ১৭১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। নির্বাচিত ১১ জন সদস্যরা হলেনঃ ১. মোঃ জাবেদ মিয়া — ২২৯ ভোট ২. হিরন্ময় দেব — ২০৭ ভোট ৩. পংকজ কান্তি দাশ — ১৭২ ভোট ৪. অলক পাল — ১৭১ ভোট ৫. মোহাম্মদ নুরুজ্জামান — ১৬৪ ভোট ৬. কৃপেশ চন্দ্র বিশ্বাস — ১৬২ ভোট ৭. মোঃ আব্দুস সালাম — ১৫৮ ভোট ৮. সাইফুল ইসলাম — ১৫৫ ভোট ৯. সুমন. কান্তি পাল — ১৫৫ ভোট ১০. মোঃ সাখাওয়াত হোসেন — ১৫২ ভোট ১১. সুবাস রবি দাশ — ১৪৭ ভোট নির্বাচনে ৩৩৫ জন ভোটারের মধ্যে ৩৩৩ জন ভোটার ভোট প্রদান করেন। বিজয়ী ও বিজিত সকল প্রার্থীরা বলেছেন পূর্বের ন্যায় সকল শিক্ষকগণকে নিয়ে পারিবারিক বন্ধনে আবদ্ধ থাকবেন এবং নিজেদের মধ্যে সকল সমস্যা সমাধান করবেন ঐক্যবদ্ধভাবে।

  •