মাত্র এক টাকার জন্য দোকানদারের হামলা, ২ নারী আহত

অক্টোবর ০৯ ২০২১, ০০:২৩

শামীমা শারমিন : মাত্র এক টাকার জন্য স্থানীয় দোকানদার কতক ২ নারীর উপর হামলার খবর পাওয়া গেছে। দোকানদারের হামলায় আহত হয় একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।
অনুসন্ধান ও এজাহার সূত্রে জানা যায়
৫ ই অক্টোবর মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৭টায় উপজেলার ১নং রহিমপুর ইউনিয়নের কালেঙ্গা করলি টিলা গ্রামে বাড়িতে পুরুষ মানুষ না থাকায় স্থানীয় মামুন মিয়ার দোকানে ডিম আনতে যান বাবলি আক্তার পান্না। এসময় পূর্বের ১ টাকা পাওনা রয়েছে বলে অভিযোগ করেন মামুন। একপর্যায়ে উভয়ে কথাকাটাকাটিতে জড়িয়ে পরলে দোকানে থাকা চকলেটের বোতল দিয়ে পান্নার মাথায় আঘাত করেন দোকানের মালিক মামুন। পান্না তার শরীরে আঘাতের কারণ জানতে চাইলে পান্নার গলা চেপে ধরে মামুন।পরে কোনোমতে সেখান থেকে পালিয়ে বাড়িতে এসে বড় বোন ফাহিমাকে বললে সে ছুটে গিয়ে দোকানদারকে এ ঘটনার কারন জানতে চাইলে তার উপরেও চড়াও হয় মামুন। এবং ফাহিমাকেও এলোপাথাড়ি কিল-ঘুষি মারতে থাকে। একপর্যায়ে অভিযুক্ত মামুন তার হাতে থাকা কাঠের রোল দিয়ে ফাহিমার মাথায় আঘাত করলে সে মারাত্বক রক্তাক্ত জখম হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এসময় বখাটে মামুন ও তার সহযোগীরা পরনের কাপড় নিয়ে টানা-হেচড়া করে ২বোনের শ্লীলতাহানী করে। ফাহিমা ও পান্নার গলা থেকে ২টি সোনার চেইন ছিনিয়ে যায় মামুন ও তার সহযোগীরা। তাদের শূর -চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে ২ বোনকে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। বর্তমানে পান্না প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়িতে ফিরলেও ফাহিমা চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।এ ঘটনায় আহত বাবলী আক্তার পান্না (২১) বাদী হয়ে ৫জনের নাম উল্লেখ করে কমলগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। নারীরদের উপর এমন অমানবিক হামলা ও শ্লীলতাহানীর মত চরম লজ্জাজনক ঘটনায় এলাকায় ক্ষোভ বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ইয়ারদোস হাসান জানান আমরা একটি অভিযোগ পেয়েছি। তাছাড়া ঘটনা শুনার পর রাতেই আমাদের ফোর্স ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এসেছেন। আমরা এ ঘটনায় যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

  •