‘বিএনপি নির্বাচনে আসবে না, আবার নামে-বেনামে তাদের লোকজন নির্বাচন করবে’ -মৌলভীবাজারে এমনটাই বললেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান

নভেম্বর ১৯ ২০২১, ১৮:২২

শাহনেওয়াজ চৌধুরী সুমন : ‘বিএনপি নির্বাচনে আসবে না, আবার নামে-বেনামে তাদের লোকজন নির্বাচন করবে, এটা কেমন কান্ড । তারা নির্বাচন করবেন না সেটা তারা বলতে পারেন কিন্তু তারা নির্বাচনে বাধা দিতে পারেন না । সারাদেশে কাজের একটা জোয়ার চলছে। বাংলাদেশে এমন কোনো জায়গা নেই, যেখানে উন্নয়ন হচ্ছে না। সর্বত্র উন্নয়নের তোলপাড় চলছে’- মৌলভীবাজারে এসে এমনটাই বললেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান । এছাড়াও তিনি বলেন ‘সুশাসন অত্যন্ত ভালো একটি শব্দ, আমি সালাম করি, আমি সুশাসনে বিশ্বাসী, সুশাসনের বিরুদ্ধে পৃথিবীতে কোন ব্যক্তি নেই, কিন্তু ক্ষুধার পক্ষেও কোন ব্যক্তি কোথাও পাবেন না, এমনকি পশুও নেই ক্ষুধার পক্ষে, একটি পশুও যদি ক্ষুধার্ত হয় আগে খাবারটা খাবে, সেই হিসাবে বলবো আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভালো কাজ করছেন’ ।

শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) দুপুরে শহরের শান্তিবাগ এলাকায় মনু নদীর পাড় ঘেঁষে মৌলভীবাজার পৌরসভার বাস্তবায়নে নির্মাণাধীন ওয়াকওয়ে, লাইটিং এবং সৌন্দর্যবর্ধন কাজের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এসব কথা বলেন।

প্রায় ১১ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণাধীন এ কাজের মধ্যে রয়েছে ওয়াকওয়ে,ল্যান্ডস্ক্যাপিং,দুর্লভ ফুল ও ফলের গাছ রোপণ এবং রাস্তার সৌন্দর্য বৃদ্ধি করণ । পৌরসভার মেয়র মো: ফজলুর রহমানের সভাপতিত্বে উক্ত ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নেছার আহমদ,জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মিছবাহুর রহমান, জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান,পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া প্রমুখ । এছাড়াও উক্ত অনুষ্ঠানে জেলার বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন । এসময় স্বাগত বক্তব্য রাখেন পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মো: নকিবুর রহমান ।

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান আরো বলেন, ‘মসজিদ-মন্দির-গীর্জা সকল কিছু মিলে বাংলাদেশ। হিন্দু-বৌদ্ধ-খৃস্টান, মনিপুরি, সাওতাল, খাসিয়া-গারো সকলের বাংলাদেশ। মানুষে মানুষের কোনো ভেদাভেদ নেই। সকল মানুষ সমান সুযোগ-সুবিধা ও অধিকার নিয়ে বসবাস করবে। সকলে মিলে একটি পরিবার’।

উল্লেখ্য, ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান পর পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান শহরের কুদালি ছড়া ও প্রবীণাঙ্গন পরিদর্শন করেন । পরে মনিপুরী সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শ্রী শ্রী কৃষ্ণের ১৭৯তম মহারাশলীলা উৎসবে যোগদানের জন্য কমলগঞ্জের জুড়া মন্ডপের উদ্দেশ্যে রওনা দেন ।

  •