হত্যা মামলার আসামী ও বহিস্কৃত নেতাকে নিয়ে দলীয় মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন এক চেয়ারম্যান প্রার্থী

ডিসেম্বর ০১ ২০২১, ২১:৪৩

মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ কমলগঞ্জ উপজেলার পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী কমলগঞ্জের ১নং রহিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ বদরুল আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় অফিসে মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন। কমলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক (৩) ইফতেখার আহমেদ বদরুল বুধবার দুপুরে ২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ গুলিস্তানের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তিনি এ মনোনয়ন ফরম জমা করেন। এ সময় তার সাথে ছিলেন কমলগঞ্জের আলোচিত নাজমুল হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত ৬ নাম্বার আসামী সুলেমান মিয়া, জেলা যুবলীগ থেকে বহিস্কৃত নেতা আনোয়ার হোসেন ও তার বড় ভাই ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল। এদের মধ্যে আনোয়ার হোসেন গত পৌর নির্বাচনে কমলগঞ্জ পৌরসভায় দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে নৌকার বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে জেলা যুবলীগের সহ সভাপতি পদ থেকে বহিস্কৃত হন। দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী বদরুলের বড় ভাই বুলবুল গত উপজেলা নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে নৌকার বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন। হত্যা মামলার আসামি আর দল থেকে বহিস্কৃত নেতা এবং দলীয় প্রার্থীর নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বী বিদ্রোহী প্রার্থী নিয়ে মনোনয়ন ফরম জমার কয়েকটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে কমলগঞ্জে নানা সমালোচনার ঝড় উঠে। এ বিষয়ে ইফতেখার আহমেদ বদরুল এর কোনো বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কমলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল এক নেতা বলেন, এটা দুঃখজনক। এর বাহিরে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। কমলগঞ্জ থানার ওসি ইয়ারদৌস হাসান জানান, নাজমুল হত্যা মামলার আসামী সুলেমান মিয়া পলাতক নয়। এজাহারভুক্ত এ আসামি উচ্চ আদালতের জামিনে রয়েছেন।

  •