মৌলভীবাজার পৌরসভার একাংশ বন্যা আক্রান্ত হওয়ায় প্রায় আড়াই কোটি টাকার চাল-গম নষ্টের আশঙ্কা

জুন ১৭ ২০১৮, ২১:২৭

স্টাফ রিপোর্টার  মনু নদের প্রতিরক্ষা বাঁধ ভেঙে পৌরসভার পশ্চিম ও দক্ষিণাঞ্চলের তিনটি ওয়ার্ড প্লাবিত এলাকার অনেক বাসাবাড়ি প্রায় তিন চার ফুট পানিতে নিমজ্জিত রয়েছে। এছাড়া ভাঙনের পানিতে কুসুমবাগ এলাকায় দুটি ও উপজেলা পরিষদ এলাকায় দুটি খাদ্যগুদামেও পানি উঠেছে । শনিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে মৌলভীবাজার শহরতলীর বারইকোনা এলাকায় মনু বাঁধে ভাঙন দেখা দেয় এবং দ্রুত গতিতে আশপাশে ছড়িয়ে পড়ে মনু নদীর পানি। ফলে এ চারটি গুদামে রক্ষিত ১ হাজার ৫৬৮ মেট্রিক টন চাল ও ৪২৪ মেট্রিক টন গম এর বস্তার তিন থেকে চারটি স্তর পানিতে তলিয়ে গেছে।

ভারপ্রাপ্ত জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মনোজ কান্তি দাস চৌধুরী জানান, ‘রাত থেকেই গুদাম এলাকাতে আছি। এ অবস্থায় পানি বেশিক্ষণ থাকলে চাল-গম নষ্ট হয়ে যাবে। প্রায় আড়াই কোটি টাকার ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা করছি। তবে ১৭জুন রবিবার বিকালের দিকে সরিজমিন গিয়ে দেখা যায়, শ্রমিকরা তীব্র স্রোত উপেক্ষা করে জেলার প্রধান এই খাদ্য গুদামে সংরক্ষিত চাল ও গম নিরাপদ স্থানে সরানোর জন্য ট্রাকে তুলা হচ্ছে।

খাদ্য গুদামের বিষয়ে জেলা প্রশাসক তোফায়েল ইসলাম বিকেলে সাংবাদিক সম্মেলনে জানান, আজ বিকেলে খাদ্য গুদাম থেকে চাল ও গম নিরাপদ স্থানে নেওয়া হয়েছে। তবে কিছুটা নষ্ট হয়েছে। তিনি আরো জানান, এ এলাকা দিয়ে পানি আসবে সে আশংকা ছিলনা এবং যখন পানি এলো খাদ্য গুদামের চাল, গম সরিয়ে নেওয়ার মত পর্যাপ্ত সুযোগ ছিলনা।

  •