দেশে নির্বাচন এলে যুদ্ধ পরিবেশ তৈরী হয়- সিইসি নুরুল হুদা

মার্চ ১৫ ২০১৯, ২০:২৯

শাহনেওয়াজ  চৌধরী সুমনঃ প্রধান নির্বাচন কমিশনার নুরুল হুদা বলেছেন, আমাদের দেশে নির্বাচন এলে যুদ্ধ পরিবেশ তৈরী হয়। সেখানে লোক থাকতে হবে, সেন্টার পাহারা দিতে হবে, নির্বাচন নিয়ে এরকম পরিস্থিতি তৈরী হয়। কিন্তু উন্নত দেশগুলোতে এরকম পরিবেশ তৈরী হয় না। একদিন আমাদের দেশেও ঐসব দেশের মত পরিবেশ তৈরী হবে।
তিনি বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর স্থানীয় সরকার নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ একটি নির্বাচন। ১৯৮২ সাল থেকে উপজেলা নির্বাচন হয়ে আসছে। এ টি ৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচন।
তিনি আরোও বলেন, নির্বাচন কমিশন কিছু বিধি করে থাকে। কেন্দ্রে প্রিজাইডিং অফিসার ভোট গ্রহণ করে থাকেন। কোন কারণে ভোট গ্রহণ করা সম্ভব না হলে প্রিজাইডিং অফিসার রিটার্নিং অফিসারকে জানাবেন।
নুরুল হুদা আইনশূংখলা বাহিনীর উদ্দেশ্যে বলেন, নির্বাচন নিয়ে পক্ষপাতিত্বমূলক আচরণ করা যাবে না। সকল বাহিনী আইনশৃংখলা রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন।
নুরুল হুদা আরোও বলেন, ভোটরদের নিরাপত্ত্বা নিশ্চিত করতে হবে। যাতে ভোট দিয়ে তারা নিরাপদে বাড়ি ফিরে যেতে পারে। এবং প্রার্থীর নিরাপত্ত্বা নিশ্চিত করতে হবে। কোন প্রার্থীকে যেনো কেন্দ্র থেকে বাহির করার চেষ্টা না করা হয়।
নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি কম নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে নুরুল হুদা বলেন,১০তারিখের নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি কম ছিল। কারণ প্রধান বিরোধী দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেনি।
আরেকটি প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা নির্বাচন আয়োজন করি। আমাদের এটা নিয়ে মূল্যায়ন করার কিছু নেই, কেউ নির্বাচনে আসবে না আসবে তাদের নিজস্ব ব্যাপার। বড় দল নির্বাচন বয়কট করায় উপজেলা নির্বাচনের প্রথম ধাপে ভোটার উপস্থিতি কিছুটা কম হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা। তবে ভোট সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে বলে দাবি তার।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) বিকেলে মৌলভীবাজারে পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক রোকন উদ্দিনের সভাপতিত্বে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা এবং আইনশৃংখলা বাহিনীর কর্মকর্তাদের সাথে আইনশৃংখলা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
মতবিনিময় সভায় এসময় উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহজালাল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আশরাফুর রহমান সহ জেলার সবকটি উপজেলার নির্বাহি অফিসার, সভায়, জেলা প্রশাসন,পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাব আনসার ভিডিপিসহ নির্বাচন সংশ্লিষ্ট উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা ও থানার অফিসার ইনচার্জ বৃন্দ সহ প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা উপসস্থিত ছিলেন।

  •