• ২৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ১৬ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ , ১৯শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

৩য় বিভাগ ক্রিকেট লীগের খেলায় ইয়ং বয়েজ ক্লাবের সাফল্য!

admin
প্রকাশিত নভেম্বর ১৪, ২০১৯
৩য় বিভাগ ক্রিকেট লীগের খেলায় ইয়ং বয়েজ ক্লাবের সাফল্য!
স্পোর্টস প্রতিনিধিঃ নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে গ্রুপ অফ ডেথ বলে খ্যাত এ গ্রুপের খেলায় ১০৭ রানের বিশাল ব্যাবধানে শহীদ মুকিত ৭১ কে হারিয়ে সেমিফাইনাল এর আশা বাচিঁয়ে রাখলো ইয়ং বয়েজ ক্লাব। ১২ নভেম্বর বৃস্টিতে মাঠ ভেজা থাকায় ৩৫ অভারে নামিয়ে আনা ম্যাচে টসে জয়লাভ করে শহীদ মুকিত ৭১ এর অধিনায়ক দুদুল এর ফিল্ডিং নেওয়ার সিদ্ধান্ত কে কাজে লাগিয়ে ২০ রানেই প্রথম উইকেট তুলে নেন শহীদ মুকিত ৭১ এর পেসার সেন্টু এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে রাহাত কে প্যাভিলিয়ন ফেরত পাঠান । ৫২ রানে শুভ কে কিপার এর হাতে ক্যাচ বানিয়ে দ্বিতীয় আঘাত হানেন আবিদ। এরপর ৪০ রানের পার্টনারশিপ করে ইয়ং বয়েজ কে ম্যাচে ফেরান মান্না ও মহসীন। দলিয় ৯১ আর ব্যাক্তিগত ৩১ রানে সোহানের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফিরলে আবারও ব্যাটিং বিপর্যয়ে পরে ইয়ং বয়েজ ক্লাব ১০৭ রানে ৫ উইকেট হারানো ইয়ং বয়েজ ক্লাবের ইনিংস শেষ হয় ১৫৯ রানে নির্ধারিত ৩৫ অভারে। মান্না ইনিংস সর্বোচ্চ ৩১, মহসীন ও শুভ দুজনই ২৪ রান করে করেন আর দলিয় অধিনায়ক আরিফ ২ ছয় আর ১ চারে করেন ২১ রান। শহীদ মুকিত ৭১ এর হয়ে মাজেদ ১৭ রানে ৩ উইকেট আর সায়মন ও আবিদ দুটি করে উইকেট লাভ করেন। ৩৫ অভারে ১৬০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে মাহবুব এর জোড়া আঘাতে বিপদে পড়ে যায় শহীদ মুকিত ৭১। মাত্র ৮ রান দিয়ে ২ উইকেট তুলে নেন ইয়ং বয়েজ ক্লাবের পেসার মাহবুব। তার সাথে অফ স্পিনার সাকিব আর মিডিয়াম পেসার জিলু জ্বলে উঠলে মাত্র ৪১ রানে ৯ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় শহীদ মুখের ৭১। শেষ জুটিতে ১১ রান করে দলের রান ৫১ তে নিয়ে যান সোহান ও রাকিন। শামসুল করেন দলিয় সর্বোচ্চ ১০ রান তবে অতিরিক্ত হতে আসে ১৭ রান। ১০৭ রানের বড় জয়ে সেমিফাইনাল এর আশা বাচিঁয়ে রাখলো ইয়ং বয়েজ ক্লাব। সাকিব নেন ৩ উইকেট আর জিলু মাত্র ১২ রানে ৪ উইকেট এবং অপরাজিত ১২ রান করে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হন। আগামীকাল মাঠে নামবে শাহজালাল স্পোর্টিং ক্লাব ও নবধারা ডায়নামাইটস।