যৌন নির্যাতনকারী সুপার আব্দুস শহীদের অপসারণের দাবিতে মানববন্ধনে সন্ত্রাসীদের হামলা, ২ শিক্ষকসহ আহত ১০

মার্চ ১৪ ২০২০, ২১:১৭

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ কুলাউড়া জালালিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার যৌন নির্যাতনকারি সুপার আব্দুস শহীদের অপসারণের দাবিতে শান্তিপূর্ণ মানববন্ধনে সন্ত্রাসীদের হামলায় ভারপ্রাপ্ত সুপার মাওলানা মুজিবুর রহমান চৌধুরী, সহকারী শিক্ষক আব্দুস সালামসহ ১০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, ১৪ মার্চ সকাল ১১ ঘটিকায় যৌন নিপীড়ক মাদ্রাসা সুপার আব্দুস শহীদকে অপসারণ ও মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির নির্বাচনের দাবিতে প্রাক্তন ও বর্তমান ছাত্রছাত্রী এবং সচেতন এলাকাবাসীর ব্যানারে এক মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। শান্তিপূর্ণ মানববন্ধনে মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির সভাপতি আব্দুর রউফের ইন্ধনে তার ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী আলা উদ্দিন, আব্দুস সামাদ, বাচ্চু, শোয়েব সহ প্রায় ১০/১২ জনের একটি সন্ত্রাসী বাহিনী অতর্কিত হামলা চালায়। এতে ভারপ্রাপ্ত সুপারসহ আহত অন্যান্যরা হলেন প্রাক্তন ছাত্র আব্দুল মালিক, মাজহারুল ইসলাম, খালেদ আহমদ, সুলেমান আহমদ, শাহান আহমদ, মুসাদ্দেক আহমদ প্রমুখ। গুরুতর আহত ভারপ্রাপ্ত সুপার মাওলানা মুজিবুর রহমান চৌধুরী ও সহকারী শিক্ষক আব্দুস সালাম কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হন। হামলার পরপরই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম ফরহাদ চৌধুরী ও কুলাউড়া থানার ওসি ইয়ারদৌস হাসান ঘটনাস্থল পরিদর্শক করেন। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান, হামলার ঘটনাটি শোনে আমি দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই। উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে প্রধান করে ৩ সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ ব্যাপারে অধ্যক্ষ আব্দুর রউফ এর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি কল রিসিভ করেননি। উল্লেখ্য যে, মাদ্রাসায় এক নতুন ছাত্রী ভর্তি করে জালালিয়া মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত সুপার মুজিবুর রহমান চৌধুরীকে নারী নির্যাতন মামলায় ফাঁসানোর চক্রান্তের ফোনালাপ ফাঁস হওয়ায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

  •