প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্যানেল প্রত্যাশী শিবলু আহমদ এর খোলা চিঠি

জুন ০৪ ২০২০, ২৩:৩২

ওপেন আই ডেক্স: প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ ২০১৮ তে সারাদেশ থেকে প্রায় ২৪ লাখ প্রার্থী লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন। এ পরীক্ষাটি চারধাপে সম্পন্ন করে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। পরীক্ষার পর অনেকটাই দ্রুত ফলাফল প্রকাশ করেন  ডিপিই। সেখানে মৌখিক পরীক্ষার  জন্য ডাকা হয় ৫৫ হাজারেরও বেশি প্রার্থীকে। তার মধ্যে মাত্র ১৮ হাজার শিক্ষক নিয়োগের ঘোষণা দেয় প্রাথমিক অধিদপ্তর। বাদ পরে প্রায় ৩৭ হাজার প্রার্থী।

এবার ৫৫ হাজার থেকে বাদ পড়া প্রার্থীদের পক্ষে  প্যানেলের মাধ্যমে নিয়োগ দেয়ার জন্য  প্রধানমন্ত্রীর কাছে খোলা চিঠি লেখেন প্যানেল প্রত্যাশী শিবলু আহমদ । পাঠকের সুবিধার্তে চিঠি টি হুবহু তুলে ধরা হল-

বাংলাদেশের স্থপতি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা এবং গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের সশ্রদ্ধ সালাম নিবেন,

আসসালামু আলাইকুম।

আপনার সফল নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে। আপনার সঠিক, বিচক্ষণ এবং সাহসী নেতৃত্বে দেশের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান হয়েছে এবং হচ্ছে। বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে আপনার সময় উপযোগী সিদ্ধান্তের কারণে মৃত্যুর সংখ্যা অন্য যে কোন দেশের তুলনায় অনেক কম।

করোনা ভাইরাস মহামারীর কারণে দেশব্যাপী লকডাউনের জন্য  ক্ষতিগ্রস্থদের প্রণোদনা প্যাকেজ দিয়ে যাচ্ছেন। আপনি দেশ কে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আনার জন্য সকল ধরনের পদক্ষেপ নিয়ে যাচ্ছেন।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলোতে প্রায় ৬৩ হাজার শূণ্যপদ রয়েছে। তীব্র শিক্ষক সংকটের মধ্যে আছে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো। করোনা পরিস্থিতিতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিশুদের শিক্ষাব্যবস্থা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষক সংকট দূর না হলে এই ক্ষতি আরও ভয়াবহ হবে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৩ সালে দেশের প্রায় ৩৭ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ করেন। শিক্ষা বিস্তারে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান অশেষ।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, ‘আমরা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ-২০১৮’ সালের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ।

কিন্তু চুড়ান্ত নিয়োগ বঞ্চিত সারাদেশের ৩৭১৪৮ জন প্যানেল প্রত্যাশী, সেই মহান নেতা, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীকে ১৯৭৩ সালের তার শিক্ষা বিস্তারের অবদানের পুনরাবৃত্তি চাই। আমরা ৩৭১৪৮ জন প্যানেল প্রত্যাশী, ‘আমরা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ-২০১৮’ সালে প্যানেল গঠনের মাধ্যমে শূন্য পদে  নিয়োগ চাই। কারণ প্যানেলে নিয়োগের ফলেই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সংকট দূর হবে, শূণ্যপদ পূরণ হবে, শিক্ষার যথাযথ মূল্যায়ন ও বেকার সমস্যার সমাধান হবে এবং শিক্ষা ক্ষেত্রে করোনা ভাইরাস জনিত ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়া সম্ভব হবে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সেই ধারাবাহিকতা অনুসরণ করে আমাদের ৩৭১৪৮ জন প্যানেল প্রত্যাশীকে  ধাপে ধাপে প্যানেল গঠন করে নিয়োগ দেওয়ার জন্য আপনার কাছে আকুল আবেদন জানাচ্ছি।

 

শিবলু আহমদ

প্যানেল প্রত্যাশী

মৌলভীবাজার জেলা।

  •