মৌলভীবাজার-হবিগঞ্জ জেলার মধ্যবর্তী এরা বরাক নদীতে সেতুর কাজ শুরু

জানুয়ারি ২১ ২০২১, ২১:৫৩

আফসার আহমেদ রাফি: মৌলভীবাজার: প্রায় অর্ধ লক্ষাধিক মানুষের চলাচলের রাস্তা মৌলভীবাজার সদর উপজেলার ১নং খলিলপুর ইউনিয়নের কেশবচর গ্রামের সীমান্ত জেলার শেষ এবং হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলাধীন ৫নং আউশকান্দি ইউনিয়নের মিনাজপুর গ্রামের মধ্যখানে অবস্থিত এরা বরাক নদী।
এই নদী পারাপার করেন দুই জেলার হাজার হাজার লোকজন। ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক থেকে আধা কিঃ মিঃ দূরত্ব নদীটি, মৌলভীবাজার সদর উপজেলার প্রায় ২০/২৫ টি গ্রামের লোকজনের চলাচলের সহজ এই রাস্তাটি, সেখানে সেতু না থাকায় মানুষের ভোগান্তি ছিলো অপরিসীম। পার্শবর্তী স্কুল,কলেজ পড়ুয়া ছাত্র ছাত্রী,হাসপাতালসহ জরুরী সকল কাজ করতে এই নদী পারাপার হতে হয়, নৌকা অথবা লম্বা সাঁকু দিয়ে ।
২১ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার সকালে আনুষ্ঠানিক কাজ শুরুকরা হয়।
উপস্থিত ছিলেন, মৌলভীবাজার সদর উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ আলমঙ্গীর চৌধুরী। ১নং খলিলপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অরবিন্দ পোদ্দার বাচ্চু, ৫নং আউশকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়াম্যান মুহিবুর রহমান হারুন, সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী আবুল বাসার,ইউ পি সদস্য হাজী ইলিয়াছ মিয়া,গোরারাই বাজার কমিটির সভাপতি খালিছুর রহমান।
উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ আলঙ্গীর চৌধুরীর জানান, প্রায় ৭ কোটি টাকা ব্যয়ে সেতুটি দৈর্ঘ্য ৯৬ মিটার,কাজটি শেষের মেয়াদ ১৫ মাস। তিনি আরো বলেন, মৌলভীবাজার রাজনগর ৩ আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমেদ ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করার কথা ছিল, জাতীয় সংসদ অধিবেশন থাকায় তিনি আসতে পারেননি। পরে এসে আনুষ্ঠানিক ভাবে ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করে যাবেন।

  •