শ্রীমঙ্গলে পানসী রেষ্টুরেন্টকে ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর কর্তৃক অভিযানে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা

মার্চ ২৩ ২০২১, ১৬:৫৯

জিতু তালুকদার: বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোঃ আল-আমিন এর নেতৃত্বে শ্রীমঙ্গল থানার পুলিশ ফোর্স এর সহযোগিতায় ২১ মার্চ রবিবার বিকেলে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলায় ভানুগাছ রোড, স্টেশন রোডসহ বিভিন্ন জায়গায় নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর প্রতিষ্ঠান, সবজির বাজার, ফার্মেসী, রেষ্টুরেন্ট এবং অন্যান্য দোকানে মনিটরিং ও সচেতনাতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

উক্ত তদারকি অভিযানে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য পণ্য তৈরি করা, একই ফ্রিজে কাঁচা ও রান্না করা খাদ্য পণ্য সংরক্ষণ করা, নিজেদের তৈরি দইয়ের মোড়কের গাঁয়ে উৎপাদন ও মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ না লেখা, পোড়া তৈল সংরক্ষণ করে খাদ্য দ্রব্য তৈরী করা, দৃশ্যমান স্থানে সেবার মূল্য তালিকা না রাখাসহ বিভিন্ন অনিময়ের দায়ে ভানুগাছ রোডে অবস্থিত পানসী রেষ্টুরেন্টকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়, রংধনু সাতরং রেষ্টুরেন্টকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও তা আদায় করা হয়।

এ অভিযানে মোট ২ টি প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট ৩৫ টাকা জরিমানা ও তা আদায় করা হয়। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোঃ আল-আমিন বলেন পেঁয়াজ, রসুন, আদা, চাল, তেল, শাক-সবজি, কাচামাল, মশলাসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী ন্যায্য মূল্যে জনগণ প্রাপ্তি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এবং ভোগ্য পণ্য সামগ্রীর দাম যেন কেউ অনৈতিক ভাবে বাড়াতে না পারে এবং নকল হ্যান্ড সেনিটাইজার ও নিম্ন মানের সংক্রমণরোধী জীবাণুনাশক বিক্রয় না করতে পারে সেই লক্ষ্যে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কর্তৃক প্রতিনিয়ত বাজার মনিটরিং কার্যক্রম চলমান থাকবে।

পেঁয়াজ, রসুন, আদা, চাল, তেল, শাক-সবজি, কাচামাল, মশলাসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী ন্যায্য মূল্যে প্রাপ্তি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এবং ভোগ্য পণ্য সামগ্রীর দাম যেন কেউ অনৈতিক ভাবে বাড়াতে না পারে এবং নকল হ্যান্ড সেনিটাইজার ও নিম্ন মানের সংক্রমণরোধী জীবাণুনাশক বিক্রয় না করতে পারে সেই লক্ষ্যে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কর্তৃক প্রতিনিয়ত বাজার মনিটরিং কার্যক্রম চলমান থাকবে।

  •