কুলাউড়ায় ভোক্তা অধিকার অভিযানে বনফুল এন্ড কোং সহ ৫ প্রতিষ্ঠান কে জরিমান

আগস্ট ১১ ২০২১, ০০:৫৯

আফসার আহমেদ রাফিঃ বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবং জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের অর্পিত ক্ষমতাবলে এবং জেলা প্রশাসক, মৌলভীবাজার সার্বিক নির্দেশনায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোঃ আল-আমিন এর পরিচালনায় কুলাউড়া থানার পুলিশ ফোর্স এর সহযোগিতায় ১০ আগস্ট মঙ্গলবার মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলায় চৌমুহনা, ষ্টেশন রোড, দক্ষিণবাজারসহ বিভিন্ন জায়গায় নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর প্রতিষ্ঠান, খাবারের দোকান, ফার্মেসী এবং অন্যান্য দোকানে মনিটরিং ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।


উক্ত তদারকি অভিযানে মূল্য তালিকা না রাখা, মেয়াদ উত্তীর্ণ খাদ্য পণ্য বিক্রয় করা, বেশি দামে মাস্ক বিক্রয় করা এবং মাস্কের প্যাকেটের দাম মুছে ফেলা, ক্রয় ভাউচার সংগ্রহ না করাসহ বিভিন্ন অনিয়মের দায়ে ষ্টেশন রোডে অবস্থিত মেসার্স সিকান্দর স্টোরকে ৪ হাজার টাকা, মেসার্স জলিল ষ্টোরকে ১ হাজার টাকা, বখত ফার্মেসীকে ১ হাজার ৫ শত টাকা জরিমানা আরোপ ও তা আদায় করা হয়।

আগের দিনের বাঁসি ফাস্ট ফুড বিক্রয় করেছেন এমনি অভিযোগ এনে কুলাউড়া উপজেলার দক্ষিণবাজারে অবস্থিত বনফুল এন্ড কোং এর বিরুদ্ধে ইমরান খান নামে একজন অভিযোগকারীর লিখিত অভিযোগটি আমলে নিয়ে তদন্ত করে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায় এবং চলমান অভিযানে উক্ত প্রতিষ্ঠানের মিষ্টির মধ্যে পোকা ও তেলা পোকা পাওয়া যায় ফলশ্রুতিতে সার্বিক দিক বিবেচনা করে অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানকে ৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং আইন অনুসারে ২৫%=১,৫০০/-অভিযোগকারী ইমরান খানকে প্রদান করা হয়। এছাড়াও আজকের অভিযান চলাকালে আরিফ নামে আরেক জন অভিযোগকারী অভিযোগের প্রেক্ষিতে চৌমুহনাতে অবস্থিত মোবাইল বাজারকে প্রতিশ্রুত সেবা না দেওয়ার অনিয়মে ১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং আইন অনুসারে ২৫%=২৫০/- টাকা অভিযোগকারী আরিফকে প্রদান করা হয়|

এ অভিযানে মোট ৫ টি প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট ১৩ হাজার ৫ শত টাকা জরিমানা ও তা আদায় করা হয়। এসময় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের পরিচালক মোঃ আল-আমীন বলেন, পেঁয়াজ, রসুন, আদা, চাল, তেল, শাক-সবজি, কাচামাল, মশলাসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী ন্যায্য মূল্যে প্রাপ্তি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এবং ভোগ্য পণ্য সামগ্রীর দাম যেন কেউ অনৈতিক ভাবে বাড়াতে না পারে এবং নকল হ্যান্ড সেনিটাইজার ও নিম্ন মানের সংক্রমণরোধী জীবাণুনাশক বিক্রয় না করতে পারে সেই লক্ষ্যে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কর্তৃক প্রতিনিয়ত বাজার মনিটরিং কার্যক্রম চলমান থাকবে।

  •